বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৯ জুন ২০১৭

নন-ডেস্ট্রাকটিভ টেষ্টিং বিভাগ

গবেষণা-উন্নয়ন / শিক্ষা কার্যক্রম

এনডিটি (নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং) বা নিধ্বংসী পরীক্ষা হলো কোন বস্ত্তকে না ভেঙ্গে সম্পূর্ণ অক্ষত অবস্থায় রেখে তার বাইরে বা ভিতরে লুকায়িত বিভিন্ন ধরনের ক্রটি যা বস্ত্তটিকে ব্যবহার অনুপযোগী তথা বস্ত্তটির গুণগত মান হ্রাস করে ফেলে তা খুঁজে বের করার পদ্ধতি। এ প্রযুক্তি ব্যবহারের ফলে শিল্পে উৎপাদিত পণ্যের কাঠামোগত অবস্থা ও পণ্যের ব্যবহারিক নির্ভরযোগ্যতার নিশ্চয়তা প্রদান, বস্ত্ততে অন্তর্নিহিত ক্রটি জনিত কারণে উদ্ভূত সম্ভাব্য দূর্ঘটনা রোধসহ পরিবেশ ও মানব জীবন রক্ষা করা, উৎপাদন পদ্ধতির নিয়ন্ত্রণ সাধন, পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণ ও মানের নিশ্চয়তা প্রদানসহ সময় ও উৎপাদন সংশ্লিষ্ট দ্রব্যের অপচয় রোধের মাধ্যমে গ্রাহকদের সন্তষ্টি প্রদান সম্ভব। পরমাণু শক্তি কেন্দ্র, ঢাকার এনডিটি বিভাগ দেশে এনডিটি বিষয়ক গবেষণা ও উন্নয়ন, জ্ঞান অর্জন, চর্চ্চা ও প্রচারের জন্য দেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসাবে সুপরিচিত। শিল্পক্ষেত্রে পরমাণু শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহারের উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এ বিভাগ দেশীয় শিল্প-কারখানায় এনডিটি প্রযুক্তি প্রয়োগের ক্ষেত্রে বৈদেশিক নির্ভরশীলতা লাঘবে এবং দেশকে এনডিটি প্রযুক্তিতে স্বয়ংসম্পূর্ণ করে তোলার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। দেশে বিরাজমান শিল্প প্রতিষ্ঠানের চাহিদার সাথে সামঞ্জস্য রেখে এনডিটি বিভাগ কর্তৃক নিম্নলিখিত ক্ষেত্রসমূহে প্রচলিত ও আধুনিক পর্যায়ে গবেষণা কর্মসূচী গ্রহন করা

  • রেডিওগ্রাফিক টেষ্টিং পদ্ধতি
  • আল্ট্রাসনিক টেষ্টিং পদ্ধতি
  • ম্যাগনেটিক পার্টিকেল ও লিকুইড পেনিট্রেন্ট টেষ্টিং পদ্ধতি
  • এডি কারেন্ট টেষ্টিং পদ্ধতি
  • কনক্রিট অবকাঠোমার গুণগত মান নিরূপণে ব্যবহৃত এনডিটি পদ্ধতি

প্রশিক্ষণ ও সনদায়ন কার্যক্রম

ইহা সর্বজন স্বীকৃত যে, এনডিটি পদ্ধতি প্রয়োগের কার্যকারিতা এনডিটি পরীক্ষণের কাজে নিয়োজিত বা এর সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির দক্ষতার উপর নির্ভরশীল। সুতরাং এনডিটি পরীক্ষণের কাজে নিয়োজিত ব্যক্তির যোগ্যতা বৈশ্বিক পর্যায়ে গ্রহণযোগ্য করার লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক স্ট্যান্ডার্ড  অনুযায়ী তার প্রশিক্ষণ, পরীক্ষণ ও সনদায়ন গ্রহণ আবশ্যক। দেশে স্থানীয় এনডিটি চর্চ্চাকারীদের জন্য আন্তর্জাতিক মানের একটি শক্তিশালী ও কার্যোপযোগী অবকাঠামো তৈরী এবং এই প্রযুক্তিতে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের লক্ষ্যে এনডিটি বিভাগ ১৯৮৬ সাল থেকে এনডিটি প্রশিক্ষণ ও সনদায়ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। এই কর্মসূচীর অংশ হিসেবে এনডিটি বিভাগ নিয়মিত ভাবে ‘‘এনডিটি পার্সোনেল সার্টিফিকেশন কমিটি’’ (এনডিটি পিসিসি) এর সাথে যৌথ উদ্যোগে বিভিন্ন এনডিটি পদ্ধতির দক্ষতার লেভেল যেমনঃ লেভেল-১, ২ অথবা ৩ এর উপর প্রশিক্ষণ আয়োজন করে থাকে। এই প্রশিক্ষণ কোর্সগুলো IAEA এর স্ট্যান্ডার্ড সিলেবাস IAEA TECDOC-628 “Training Guidelines in Non-Destructive Testing Techniques” অনুসারে পরিচালিত হয় এবং কোর্স শেষে এনডিটিপিসিসি কর্তৃক ISO-9712:2005 অনুযায়ী যোগ্যতা যাচায়ের পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়।
এই প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর আওতায় অত্র বিভাগ কর্তৃক এনডিটি বিষয়ক বিভিন্ন পদ্ধতির উপর ৬৯ টি জাতীয় প্রশিক্ষণ কোর্সের মাধ্যমে ১০০০ এর অধিক লোক এবং বিভিন্ন সংক্ষিপ্ত কোর্স/সেমিনারের মাধ্যমে ৪০০ এর অধিক লোককে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। সনদধারী ব্যক্তিগণ দেশে ও বিদেশে স্বীকৃত এবং জাতীয় উন্নয়নে সক্রিয় ভূমিকা রাখছে।

এনডিটি বিভাগ কর্তৃক পরিচালিত প্রশিক্ষণ কর্মসূচী সমূহঃ

  • Foundation Course on NDT

  • Radiographic Testing, Level 1 & 2

  • Ultrasonic Testing, Level 1 & 2

  • Magnetic Particle Testing, Level 1 & 2

  • Liquid Penetrant Testing, Level 1 & 2

  • Eddy Current Testing, Level 1 & 2

  • Other customized courses on NDT

সেবাদান কার্যক্রম

অত্র বিভাগ দেশের শিল্প প্রতিষ্ঠানের সমস্যা নিরসনকল্পে তাদের চাহিদার প্রেক্ষিতে এনডিটি বিষয়ক সেবা প্রদান করে থাকে। দেশের অনেক শিল্প প্রতিষ্ঠান অত্র বিভাগ হতে এনডিটি বিষয়ক সেবা ও পরামর্শ গ্রহণ করে আসছে। এনডিটি বিভাগ থেকে এ পর্যন্ত ১০০টির অধিক উল্লেখযোগ্য শিল্প-কারখানা যেমন বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র, সার কারখানা, গ্যাসক্ষেত্র/ গ্যাসপাইপ লাইন, তেল শোধনাগার, জাহাজ নির্মাণ কারখানা, কাগজ, চিনি ও সিমেন্ট কারখানা, বিভিন্ন রাসায়নিক কারখানা, রেলওয়ে, এয়ার লাইন্স, বিমানবাহিনী, নৌবাহিনী, ইস্পাত অবকাঠামো প্রস্ত্ততকারী কারখানা প্রভৃতি শিল্প প্রতিষ্ঠান এনডিটি বিষয়ক পরামর্শ ও সেবা গ্রহন করেছে। অতীতে বাংলাদেশে এনডিটি বিষয়ক দক্ষ জনবল ও সুবিধাদির অভাব থাকায় এ দেশের বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানে এনডিটি বিষয়ক কর্মকান্ডের জন্য বৈদেশিক কোম্পানীকে নিয়োগ দেওয়া হতো। বর্তমানে এনডিটি বিভাগের সদস্যগণের নিরলস ও ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠার মাধ্যমে এই অবস্থার উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন হয়েছে। এনডিটি বিভাগের প্রত্যক্ষ সহযোগীতায় দেশে প্রায় ১০টির মত বেসরকারি এনডিটি কোম্পানী প্রতিষ্ঠিত হয়েছে যারা তাদের সুবিধাদি সমৃদ্ধকরণ এবং দক্ষ জনবল তৈরীর মাধ্যমে এনডিটি বিভাগের পাশাপাশি দেশীয় শিল্প-প্রতিষ্ঠানে  মানসম্মত সেবা প্রদান করে যাচ্ছে।  এ সকল প্রতিষ্ঠানে কর্মরত বেশীরভাগ ব্যক্তি বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের (বাপশক) এনডিটি বিভাগ কর্তৃক পরিচালিত জাতীয় প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর আওতায় প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছে। ফলস্বরূপ দেশে এনডিটি সেবা সহজলভ্য হয়েছে এবং এর খরচ বৈদেশিক কোম্পানীর তুলনায় অত্যন্ত কম।

এনডিটি বিভাগ কর্তৃক সেবা প্রদানের ক্ষেত্র সমূহ

  • Hardness Testing
  • Ultrasonic Flaw Detector Calibration
  • Ultrasonic Thickness Gauge Calibration
  • Testing, Installation & Calibration of NDT Equipment
  • Special Investigation using NDT
  • NDT Procedure Preparation
  • Consultancy on NDT and Weld Quality Control
  • Remote Visual Inspection using Videoscope
  • Radiographic Testing
  • Ultrasonic Testing
  • Ultrasonic Thickness Gauging
  • Magnetic Particle Testing
  • Liquid Penetrant Testing
  • Eddy Current Testing
  • Other customized courses on NDT

২০১৫ সালে অনুষ্ঠিতব্য সম্ভাব্য এনডিটি প্রশিক্ষণ কোর্স সমূহের তালিকা

Sl. No

Name of the Course

Course Duration

১)

Foundation Course

05 – 23 April 2015

২)

IAEA/RCA Training Course on DIR & CT

26 – 30 July 2015

৩)

MT, Level - 2

09 – 27 Aug. 2015

৪)

PT, Level - 2

11 – 29 Oct. 2015

৫)

RT, Level- 3

Nov./Dec. 2015

বিদ্যমান গুরুত্বপূর্ণ এনডিটি সুবিধাদি সমূহ

  • 200 kV and 300 kV panoramic & unidirectional portable X-ray Machines
  • Ir-192 Gamma Projectors with remote controls
  • Portable Digital Ultrasonic Flaw Detectors and Thickness Gauges
  • Portable Electromagnetic Yoke and Current Generator
  • Magnetizing and Demagnetizing Coils
  • Single Frequency multipurpose Eddy Current Tester
  • Fluorescent and Non-fluorescent Liquid Penetrant Testing Kits
  • Electromagnetic Rebar Locator
  • Schmidt Hammer
  • Portable Hardness Tester
  • Imaging Plate Based Digital Industrial Radiographic System
  • Multi-frequency Eddy Current Testing Equipment
  • Industrial Videoscope  for Remote Visual Inspection
  • Thermal Infrared Camera
  • Ultrasonic C-Scan Immersion Unit

বাংলাদেশের এনডিটি বিষয়ক জাতীয় সনদায়ন কর্তৃপক্ষ (এনডিটিপিসিসি)

দেশে স্থানীয় শিল্প প্রতিষ্ঠানে যোগ্য এনডিটি ব্যক্তিবর্গের চাহিদার কথা বিবেচনা করে এবং স্থানীয় পর্যায়ে শক্তিশালী এনডিটি পেশাজীবি তৈরীর উদ্দেশ্যে এবং দেশকে এনডিটি প্রযুক্তিতে স্বয়ংসম্পূর্ণ করে তোলার লক্ষ্যে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন (বাপশক) ১৯৮০ সালের শুরুর দিকে এনডিটি বিষয়ক UNDP/IAEA/RCA প্রকল্পসমূহ গ্রহণ করে। এই প্রকল্পের চাহিদা মোতাবেক বাপশক ১৯৮৬ সালে এনার্জি এন্ড মিনারেল রিসোর্সেস মন্ত্রণালয়ের (তৎকালীন বাপশক এর নিয়ন্ত্রণকারী মন্ত্রণালয়) এনার্জি ডিভিশন কর্তৃক জারীকৃত অফিস আদেশ নং E-II/BAEC-10/84/454 dated 8.7.85 এর আলোকে “NDT Personnel Certification Committee (NDTPCC)” and “NDT Academic Committee (NDTAC)” গঠনের মাধ্যমে এনডিটি প্রশিক্ষণ ও সনদায়ন কার্যক্রম শুরু করে এবং পুনরায় ১৯৯৩ সালে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের (তৎকালীন বাপশক এর নিয়ন্ত্রণকারী মন্ত্রণালয়) অফিস আদেশ নং বিপ্রম/শা-৬/পশক-4/93/5254 dated 29.12.93 অনুযায়ী উক্ত দুই কমিটি পুনঃগঠিত হয়।  
এই কমিটিদ্বয়ের সক্রিয় সহযোগিতায় বাপশক ১৯৮৬ সাল থেকে এনডিটি প্রশিক্ষণ কোর্স ও সনদায়ন কর্মসূচী পরিচালনা করে আসছে এবং পরবর্তীতে জাতীয় সনদায়ন কার্যক্রমকে এই অঞ্চলের অন্যান্য দেশের সাথে সংগতিপূর্ণ করার লক্ষ্যে ISO 9712 – “Non-destructive testing - Qualification and certification of personnel” অবলম্বন করা হয়েছে। এই কর্মসূচীর আওতায় বাপশক প্রতি বছর বিভিন্ন এনডিটি পদ্ধতিতে ভিন্ন ভিন্ন দক্ষতার লেভেল এর উপর প্রশিক্ষণ কোর্স আযোজন করে থাকে।
ISO 9712 (ISO9712:2005) এর তৃতীয় সংস্করণে বর্ণিত শর্তের চাহিদা পূরণ এবং জাতীয় সনদায়ন কার্যক্রমকে পারস্পরিকভাবে গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য আঞ্চলিক/আন্তর্জাতিক কর্মসূচীর সাথে সংগতিপূর্ণ করার লক্ষ্যে উপরোক্ত দুই কমিটি বিলুপ্ত করা হয় এবং দেশে এনডিটি সার্টিফিকেশন কার্যক্রমকে পরিচালনা করার জন্য বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের (তৎকালীন বাপশক এর নিয়ন্ত্রণকারী মন্ত্রণালয়) অফিস আদেশ নং বিতযোপ্রম/শা-৬/পশক-১২/৯০ (খন্ড-৪)/৫১০, তারিখঃ ০৩.০৩. ২০০৯ মোতাবেক এবং বাপশক বিজ্ঞাপন নং বাপশক/সংস্থাপন-১-৫(১০)/৮৫-সংকলন-২/১৪০০, তারিখঃ ০৮.০৪.২০০৯ এর মাধ্যমে নতুনভাবে গঠিত এনডিটিপিসিসি এর অনুমোদন দেওয়া হয়।
সাধারণভাবে এনডিটিপিসিসির উদ্দেশ্য হলো এনডিটি চর্চ্চাকারীদের জন্য জাতীয় সনদায়ন কর্মসূচীর পরিচালনা ও তার উন্নয়ন। এনডিটিপিসিসি বিভিন্ন শিল্প ক্ষেত্রে নিয়োজিত এনডিটি ব্যক্তিবর্গের জন্য জাতীয় সনদায়ন কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ, পর্যবেক্ষণ এবং সার্বিক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে।
এনডিটিপিসিসি এনডিটি সনদধারী ব্যক্তিদের জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী প্রশিক্ষণ কোর্সসমূহ পরিচালনার মাধ্যমে জ্ঞানের প্রসারতা ও পরীক্ষার্থীর মূল্যায়নের মাধ্যমে যোগ্য এনডিটি ব্যক্তি নির্বাচিত করার কাজে দায়িত্ব প্রাপ্ত।

এনডিটিপিসিসির কর্তৃত্বঃ

  • বাংলাদেশে এনডিটি বিষয়ক যোগ্যতা ও সনদায়নের জন্য একমাত্র স্বীকৃত ’’জাতীয় সনদায়ন কর্তৃপক্ষ’’ হিসেবে কাজ করা
  • ব্যক্তিপর্যায়ে সনদ প্রদান/ বাতিল/ নবায়ন/পূণরীক্ষন
  • এনডিটি টেকনিক্যাল কমিটির সদস্য নির্বাচন এবং এ কমিটির নীতিমালা অনুমোদন
  • প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের স্বীকৃতি প্রদান/ বাতিল/ নবায়ন/পর্যালোচনা
  • পরীক্ষা কেন্দ্রের স্বীকৃতি প্রদান/ বাতিল/ নবায়ন/ পর্যালোচনা
  • এনডিটিপিসিসির সরাসরি তত্ত্বাবধানে অনুমোদিত প্রতিষ্ঠানের জন্য আনুষাঙ্গিক সুবিধাদি, দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনবল, পরীক্ষার সরঞ্জাম, রেকর্ড ইত্যাদি সরবরাহ সহ প্রতিনিধি প্রেরণ
  • বিদেশ থেকে এনডিটি বিষয়ে সনদপ্রাপ্ত কোন ব্যক্তি বাংলাদেশে এনডি টি চ্চর্চা করতে চাইলে সেই ব্যক্তির সনদের গ্রহণযোগ্যতা যাচাই ও সনদের সমতার মূল্যায়ন

এনডিটিপিসিসির দায়িত্বসমূহঃ

  • ISO-9712 “Non-destructive testing- Qualification and certification of personnel” অনুসারে জাতীয় সনদায়ন কর্মসূচী প্রবর্তন, বহাল রাখা এবং প্রসার
  • ISO 9712 এর চাহিদা মোতাবেক প্রযোজ্য পদ্ধতি অবলম্বনে সনদায়ন কর্মসূচী পরিচালনা এবং সার্বিক তত্ত্বাবধান
  • সকল প্রযোজ্য নথি সংরক্ষণ এবং সনদ ও প্রশংসাপত্র প্রদান
  • ব্যবহারিক পরীক্ষার জন্য কৃত্রিম ত্রুটি এবং ত্রুটি সম্পর্কিত তথ্য সম্বলিত টেস্টপিস সংগ্রহ
  • জাতীয় বা আন্তর্জাতিক স্ট্যান্ডার্ড এর চাহিদা মোতাবেক প্রশিক্ষণ ও সনদায়ন কর্মসূচীর উন্নয়ন
  • আঞ্চলিক এবং আন্তর্জাতিকভাবে সনদের পারস্পরিক গ্রহণযোগ্যতার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ
  • সরকারি এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এনডিটি বিষয়ক পরামর্শ সেবা প্রদান

এনডিটিপিসিসির গঠন

১) সভাপতি : চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন, ঢাকা
২) সহ-সভাপতি : সভাপতি, বাংলাদেশ সোসাইটি ফর নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং (বিএসএনডিটি)
৩) কোষাধ্যক্ষ : কোষাধ্যক্ষ, বাংলাদেশ সোসাইটি ফর নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং (বিএসএনডিটি)
৪) সদস্য সচিব : প্রধান, এনডিটি বিভাগ, পরমাণু শক্তি কেন্দ্র, ঢাকা

সদস্যবৃন্দঃ

১)    পরিচালক, পরমাণু শক্তি কেন্দ্র, ঢাকা
২)    পরিচালক, পারমাণবিক নিরাপত্তা ও বিকিরণ নিয়ন্ত্রণ বিভাগ, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন।
৩)    পরিচালক(স্ট্যান্ডার্ড), বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ড এন্ড টেষ্টিং ইনষ্টিটিউট।
৪)    সাধারন সম্পাদক, বাংলাদেশ সোসাইটি ফর নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং (বিএসএনডিটি)

নিম্নবর্ণিত প্রতিষ্ঠান সমূহের সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে ১ জন করে প্রতিনিধিঃ   

  • ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়    
  • বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় , ঢাকা
  • ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি, গাজীপুর    
  • বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ
  • বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড     
  • বাংলাদেশ তেল,গ্যাস ও খনিজ সম্পদ কর্পোরেশন
  • বাংলাদেশ রসায়ন শিল্প সংস্থা     
  • বাংলাদেশ ইস্পাত ও প্রকৌশল সংস্থা
  • বাংলাদেশ রেলওয়ে     
  • বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন
  • বে-সামরিক ও সামরিক সম্পর্ক অধিদপ্তর     
  • আমর্ড ফোর্সেস বিভাগ

৫)    ২ জন বিশিষ্ট এনডিটি পেশাজীবি
৬)    বেসরকারি পর্যায়ে এনডিটি প্রযুক্তি ব্যবহারকারী ২টি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি

পারস্পরিক সহযোগীতা মূলক কর্মসূচী

ক)    আই এ ই এ প্রোজেক্টসমূহ

এনডিটি বিভাগ আইএইএ/আরসিএ কর্তৃক এশিয়া ও প্যাসিফিক অঞ্চলের জন্য আয়োজিত বিভিন্ন সনদায়ন কর্মসূচীতে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করে আসছে। এ প্রোজেক্টের মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে আরসিএ ভূক্ত সদস্য দেশগুলোর মধ্যে এনডিটি বিষয়ক সনদায়ন কর্মসূচীর পারস্পরিক গ্রহণযোগ্যতা অর্জনের জন্য সদস্য দেশগুলোর প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর মধ্যে একটি সুষম গুণগত মান ও আদর্শ বজায় রাখা।

  • বর্তমানে এনডিটি বিভাগ আইএইএ কর্তৃক পরিচালিত “Building Capacity for Applications of Advanced Non-Destructive Evaluation Technologies for Enhancing Industrial Productivity (RCA)” - RAS/1/020 (TC Cycle 2014-2015) বিষয়ক প্রকল্প চালিয়ে যাচ্ছে।
খ)    বাংলাদেশ বিমান বাহিনী (বি এ এফ)

অত্র বিভাগ বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ফ্লাইট সেফটি ইনষ্টিটিউট কর্তৃক ফ্লাইট সেফটি অফিসারদের জন্য পরিচালিত প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রশিক্ষণ পাঠ্যসূচীর চাহিদা মোতাবেক প্রশিক্ষক প্রেরণ ও এনডিটি বিভাগের গবেষণাগার ব্যবহারের সুযোগ প্রদানের মাধ্যমে সহযোগীতা মূলক কার্যক্রম প্রতিরক্ষা খাতেও সম্প্রসারিত করেছে। সাধারণত বাংলাদেশ বিমানবাহিনী তাদের কর্মক্ষেত্রে প্রতি বছর এই ধরনের দুটি কোর্সের আয়োজন করে থাকে। এ সকল কোর্সে এনডিটি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণ এনডিটি বিষয়ক বিভিন্ন পদ্ধতির উপর ০৫ ঘন্টা তাত্ত্বিক ও দিন ব্যাপী এনডিটি পদ্ধতি সমূহের উপর ব্যবহারিক ক্লাস নিয়ে থাকেন। এ সকল কোর্সে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী, বাংলাদেশ সেনা বাহিনী এবং বাংলাদেশ নৌ বাহিনীর পাশাপাশি বিদেশের বিভিন্ন বিমান বাহিনী থেকে আগত প্রশিক্ষণার্থীগণ অংশগ্রহণ করেন।

বাংলাদেশ সোসাইটি ফর নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং (বিএসএনডিটি)

বাংলাদেশ সোসাইটি ফর নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং (বিএসএনডিটি) এনডিটি প্রযুক্তি চর্চ্চাকারীদের একটি পেশাজীবি সংগঠন হিসেবে ১৯৯০ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই এই সোসাইটি জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সেমিনার, প্রশিক্ষণ কোর্স, সভা, প্রকাশনা ও কর্মশালা আয়োজনের মাধ্যমে দেশে এনডিটি প্রযুক্তির প্রচার ও প্রসারে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। একটি পেশাজীবি সংগঠন হিসেবে পেশা সংশ্লিষ্ট প্রযুক্তিগত দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য বিভিন্ন ধরণের ষ্ট্যান্ডার্ড ও কার্যসংশ্লিষ্ট নির্দেশনা প্রস্ত্ততের লক্ষ্যে বিএসএনডিটি বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন (বাপশক), বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ ষ্ট্যান্ডার্ড ও টেষ্টিং ইনষ্টিটিউশন (বিএসটিআই), বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠান এবং সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান প্রভৃতি সমূহের সাথে পারস্পরিক সহযোগীতার ভিত্তিতে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এই সোসাইট শিল্পের নিরাপত্তা ও শিল্পে উৎপাদিত পণ্যের বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জনের লক্ষ্যে কার্যকরী এনডিটি পদ্ধতির প্রয়োগ ও এর অনুশীলন অব্যাহত রেখেছে।
বিএসএনডিটি বাংলাদেশের শিল্পক্ষেত্রে উৎপাদিত পণ্যের গুণগত মান নিয়ন্ত্রণ এবং মান নিশ্চিতকরনে শিল্প ক্ষেত্রে এনডিটি পদ্ধতির প্রয়োগ ও উন্নয়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। পেশার উৎকর্ষতা বৃদ্ধিতে বিএসএনডিটি বিভিন্ন জাতীয় প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বিশ্বের অন্যান্য দেশের এনডিটি সোসাইটির সাথেও পারস্পরিক সহযোগীতামূলক কর্মসূচী সম্প্রসারিত করেছে। সেই সঙ্গে এনডিটি পদ্ধতির কৌশল, বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তির উৎকর্ষ সাধনে নিয়োজিত অষ্ট্রেলিয়া, কানাডা, ডেনমার্ক, ইন্ডিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ইতালী, জাপান, মালেশিয়া, নরওয়ে, পাকিস্তান এবং শ্রীলংকার এনডিটি সোসাইটির সাথে সহযোগীতামূলক সম্পর্ক স্থাপন করেছে। বিএসএনডিটি তার প্রতিষ্ঠার পাঁচ বছর পরে তথা ১৯৯৫ সালে ইন্টারন্যাশনাল কমিটি ফর নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং (আই সি এনডিটি) এর সদস্যপদ লাভ করে। এছাড়াও বিএসএনডিটি এশিয়া প্যাসিফিক কমিটি ফর নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং (এপিসিএনডিটি) কর্তৃক আয়োজিত কর্মসূচীতেও অংশগ্রহণ করেছে। বিএসএনডিটি যৌথভাবে দেশী ও বিদেশী বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সাথে নিয়মিত ভাবে সভা, সেমিনার, কনফারেন্স এবং কর্মশালার আয়োজন করে আসছে যেখানে বিভিন্ন দেশের সোসাইটির প্রতিনিধিবৃন্দ এবং এনডিটি প্রযুক্তি চর্চ্চাকারী প্রতিষ্ঠানের ব্যক্তিবর্গ অংশ গ্রহণ করে থাকেন। বিএসএনডিটির সদস্যগণও অন্যান্য দেশের এনডিটি সোসাইটি এবং আইসিএনডিটি কর্তৃক আয়োজিত বিভিন্ন কর্মসূচীতে অংশ গ্রহণ করে থাকেন। এনডিটি বিভাগ নিয়মিতভাবে বিএসএনডিটি কে সেমিনার/সিম্পোজিয়াম/কর্মশালা/প্রশিক্ষণ কোর্স/এজিএম/কাউন্সিল মিটিং প্রভৃতি আয়োজনে সক্রিয়ভাবে সহযোগীতা করে আসছে।
এই নূতন শতাব্দীতে বিশ্বে এনডিটি ক্ষেত্রে দক্ষ ও প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত জনশক্তির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। বিএসএনডিটি কর্তৃক পরিচালিত মানব সম্পদ উন্নয়নমূলক কর্মসূচী বিশেষ করে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক ও ভৌত অবকাঠামোর উন্নয়নসহ ও দারিদ্র্য বিমোচনে এক সুদুরপ্রসারী ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে।
বাংলাদেশে এনডিটি প্রযুক্তি ব্যবহারের গুরুত্ব বিবেচনা করে এবং দেশীয় এনডিটি প্রযুক্তি চর্চাকারীদের জন্য আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন একটি শক্তিশালী ও কার্যকরী অবকাঠামো তৈরীর লক্ষ্যে বাংলাদেশ আইএইএ/আরসিএ এ কর্তৃক পরিচালিত বিভিন্ন ধরনের প্রজেক্টে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করে আসছে। এই সকল প্রজেক্টের কর্মসূচীর অংশ হিসেবে শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোতে এনডিটি প্রযুক্তি ব্যবহারকারীদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আন্তর্জাতিক আনবিক শক্তি সংস্থা, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন ও বাংলাদেশ এনডিটি পার্সোনেল সার্টিফিকেশন কমিটি যৌথভাবে  ০৬-০৭ ডিসেম্বর ১৯৮৯ মেয়াদকালে ‘‘শিল্প ক্ষেত্রে এনডিটি পদ্ধতির প্রয়োগ’’ শীর্ষক একটি জাতীয় সেমিনারের আয়োজন করে। উক্ত সেমিনারে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে আগত প্রতিনিধিবৃন্দ বাংলাদেশে এই বিশেষ প্রযুক্তির প্রচার, প্রয়োগ ও উন্নয়নের জন্য এনডিটি সোসাইটি গঠনের জন্য একনিষ্ঠ মত প্রকাশ করে। সেমিনার শেষে প্রস্তাবিত সোসাইটির জন্য খসড়া গঠনতন্ত্র প্রণয়ন কল্পে একটি এডহক্ কমিটি গঠন করা হয়। পরিশেষে এডহক্ কমিটি খসড়া গঠনতন্ত্রটি চূড়ান্ত করে এবং ১৯৯০ সালের ১৯ শে নভেম্বর অনুষ্ঠিত ৫ম সভায় উপস্থিত কমিটির সকল সদস্যদের গঠনতন্ত্রে স্বাক্ষরের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সোসাইটি ফর নন-ডেষ্ট্রাকটিভ টেষ্টিং গঠিত হয়। ১৯৯১ সালের ০৬ মে অনুষ্ঠিত প্রথম সাধারণ সভায় সদস্যগণ খসড়া গঠনতন্ত্রটির অনুমোদন দেয়। ড. মোঃ সানাউল্লাহ, তদানীন্তন প্রধান, এনডিটি বিভাগ, পরমাণু শক্তি কেন্দ্র (পশকে) ঢাকা এবং জনাব জাফর সাদেক, তৎকালীন উর্দ্ধতন প্রকৌশলী, এনডিটি বিভাগ, পশকে ঢাকা যথাক্রমে প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হন। বর্তমানে বিএসএনডিটির ২০০ জন এর উপর বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্য, ১৩ টি সদস্য প্রতিষ্ঠান এবং ২০ জন ফেলো আছে। এই সোসাইটি নির্দিষ্ট সময় অন্তর বিএসএনডিটির মুখপত্র হিসেবে ‘‘নিউজলেটার’’ এবং এনডিটি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্য প্রকাশ করে। বিএসএনডিটি এনডিটি প্রযুক্তির প্রসারে যে সকল ব্যক্তি সদস্য বা সদস্য প্রতিষ্ঠান অসামান্য অবদান রেখেছেন তাদের অ্যাওয়ার্ড প্রদান করে থাকে।

ব্যক্তিগত পর্যায়ে বিএসএনডিটি পুরস্কার  প্রাপ্তদের তালিকাঃ

SL.

Name of the Awardees

BSNDT Award

1.

Dr. Md. Sanaullah

CSO, AECD, BAEC

1996

2.

Mr. Md. Enayet Ullah Molla

CSO, AECD, BAEC

1998

3.

Engr. Delawar Bakht

MD Titas Gas T & D Co. Ltd

2000

4.

Prof. Dr. Qumrul Ahasan

MME Dept., BUET

2002

5.

Mr. Md. Mahiuddin Khan

NDT Engr, Biman Bangladesh Airlines

2004

6.

Engr. Jafar Sadique

CE, AECD, BAEC

2006

7.

Group Captain Kazi Nazrul Haque

Bangladesh Air Force

2008

8.

Mr. Md. Faruque Hossain Chowdhury

PSO, AECD, BAEC

2010

প্রতিষ্ঠান পর্যায়ে বিএসএনডিটি পুরস্কার  প্রাপ্তদের তালিকাঃ

SL.

Name of the Organization

BSNDT Award

1.

Atomic Energy Centre, Dhaka

1996

2.

Titas Gas Co.& Ltd.

1996

3.

Engineering Inspection Services Bangladesh

2000

4.

Bakhrabad Gas Systems ltd

2002

5.

Chittagong Dry Dock Limited

2006

6.

Bangladesh Industrial X-ray (BIX)

2008

বিএসএনডিটি কার্যনির্বাহী পরিষদঃ ২০১২ - ২০১৩

পদ

নাম ও ঠিকানা

সভাপতি

মোঃ রেজাউল করিম খান

রেলওয়ে প্রজেক্ট এডভাইজার, এসিই কনসালটেন্ট লিঃ  

সহ সভাপতি

প্রকৌশলী জাফর সাদেক

পরিচালক, কিউএমডি, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন

সহ সভাপতি

এয়ার কমোডর কাজী নজরুল হক

পরিচালক, প্রকৌশল বিভাগ, এয়ার হেড কোয়ার্টার, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী

সাধারণ সম্পাদক

জনাব মোঃ সাইফুল আলম

মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, এনডিটি বিভাগ, পরমাণু শক্তি কেন্দ্র

কোষাধ্যক্ষ

জনাব মোঃ ফারুক হোসেন চৌধুরী

মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও প্রধান, এনডিটি বিভাগ, পরমাণু শক্তি কেন্দ্র

যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক

জনাব কাজী আন্দালিব হাসান

ব্যবস্থাপক (ইন্সপেকটরেট) , পাইপলাইন কন্সট্রাকশন ডিপার্টমেন্ট

তিতাস গ্যাস টিএন্ডডি কোঃ লিঃ

যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক

প্রকৌশলী মোঃ বিল্লাল

উপ প্রধান প্রকৌশলী, শাহজালাল ফার্টিলাইজার সেল, বিসিআইসি

পরিষদ সদস্য

জনাব কাজী ইজাবুল খালিদ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ইঞ্জিনিয়ারিং ইনসপেকশন সার্ভিসেস অব বাংলাদেশ লিঃ (ইআইএসবি)

পরিষদ সদস্য

মিসেস শামীমা করিম চৌধুরী

প্রফেসর, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

পরিষদ সদস্য

জনাব মোঃ ফয়েজুর রহমান

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, বাংলাদেশ ইন্ডাষ্ট্রিয়াল এক্স-রে

পরিষদ সদস্য

জনাব মোঃ আতিয়ার রহমান

ব্যবস্থাপক (প্রশিক্ষন), মটস্ ইনষ্টিটিউট অফ টেকনোলজী

পরিষদ সদস্য

ক্যাপ্টেন এম.এস.আই ভূঁইয়া

ট্রাইষ্টার গ্রুপ

পরিষদ সদস্য

জনাব গোলাম মাওলা

উপ-মহাব্যবস্থাপক, ইষ্টার্ন রিফাইনারী লিঃ

পরিষদ সদস্য

ইঞ্জিনিয়ার দেলোয়ার বখত, পি,ইঞ্জ.

এডভাইজার, গ্যাস এন্ড এনার্জি, বিইটিএস কনসালটিং সার্ভিস লিঃ

পরিষদ সদস্য

উইং কমান্ডার মোঃ আতিকুজ্জামান শিকদার

অফিসার কমান্ডিং এবং চীফ কোয়ালিটি ইন্সপেকটর

সেন্ট্রাল কোয়ালিটি কন্ট্রোল ইউনিট, বাংলাদেশ বিমান বাহিনী

পরিষদ সদস্য

জনাব গোলাম মোর্শেদ জাহান

ইঞ্জিনিয়ারিং ইনসপেকশন সার্ভিসেস অব বাংলাদেশ লিঃ (ইআইএসবি)

পরিষদ সদস্য

জনাব মোঃ আব্দুস সাত্তার

উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক, তিতাস গ্যাস টিএন্ডডি কোঃ লিঃ

পরিষদ সদস্য

জনাব মোঃ আহ্সানুল হাবিব

উর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা , এনডিটি বিভাগ, পরমাণু শক্তি কেন্দ্র, ঢাকা

পরিষদ সদস্য

জনাব মোঃ ওয়াসেক উদ্দিন আহাম্মেদ

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সলিউসানস্ এনডিটি এন্ড ইন্সপেকশান সার্ভিসেস

পরিষদ সদস্য

জনাব মোঃ মাকসুদুর রহিম

ব্যবস্থাপক, পিডিসি ডিপার্টমেন্ট, তিতাস গ্যাস টিএন্ডডি লিঃ

পরিষদ সদস্য

প্রকৌশলী মোঃ ওয়ালী আহাদ

সাবেক পরিচালক, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন

পরিষদ সদস্য

জনাব মোঃ নুর নাজমুল আলম

উর্দ্ধতন প্রকৌশলী , এনডিটি বিভাগ, পরমাণু শক্তি কেন্দ্র , ঢাকা

এক্স-অফিসিও সদস্য [পূর্বেকার সভাপতি]

ড. মোঃ সানাউলাহ

সাবেক পরিচালক, পরমাণু শক্তি কেন্দ্র , ঢাকা

এক্স-অফিসিও সদস্য [সভাপতি, এনডিটি পার্সোনেল সার্টিফিকেশন কমিটি]

চেয়ারম্যান

বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশন

 

 

বিএসএনডিটি এর সদস্য হওয়ার শর্তাবলীঃ

Grade of Membership

Minm age

Minm Academic Qualifications

Training Experience & Responsibility Requirements

Admission Fee

Annual Subscri-ption

Life Time Subscription

Fellow

40 Years

M. Sc./  

B. Sc(Engg.) / equivalent

At least 7 years working experience in NDT and Member of at least 7 years standing may apply and  Engaged in a position of high responsibility at the time of application

Tk. 1000/-

(For all Age)

 

 

 

---

Tk.2000/

(For Age up to 57 Years)

Tk. 1000/-

(For Age Over 57 Years)

Member

25 Years

M. Sc./

 B. Sc(Engg.) or equivalent

At least one year of working experience after completion of level-2 professional Certification in any branch of NDT and Engaged in a responsible position at the time of application

Tk.200/-

Tk.200/-

Tk.2000/-

Associate Member of at least 5 years may apply

Associate Member

21

Years

Bachelor of Science or Diploma in Engg. or equivalent

At least 3 years working experience after completion of level-1 professional Certification in any branch of NDT

Tk.100/-

Tk.150/-

Tk.2000/-

   

Share with :